বাংলাদেশ তথা এশিয়ায় এই মুহূর্তে অন্যতম জনপ্রিয় স্মার্টফোন ব্র্যান্ড হচ্ছে শাওমি। তুলনামূলক কম বাজেটে অপেক্ষাকৃত বেশি আকর্ষণীয় স্পেসিফিকেশন ও ফিচার সমৃদ্ধ হওয়ার কারণে শাওমি ফোনের এত চাহিদা। ডিভাইসে মূল এন্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেমের ওপর ভিত্তি করে তৈরি নিজস্ব কাস্টম রম ব্যবহার করে শাওমি। এই রমের নাম এমআইইউআই। এন্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেমের মধ্যে নিজস্ব কিছু ফিচার ও অ্যাপ লোড করে দেয় শাওমি। কিন্তু অনেকেই এসব সুবিধা পুরোটা উপভোগ করতে পারেন না। কেউ কেউ খুঁজে পান না, আবার অন্যরা হয়ত ঠিক বুঝে উঠতে পারেন না যে এগুলো আসলে কী। তবে আজ আমি আপনাদের জন্য শাওমি ফোনের লুকায়িত ৩ ফিচারের তালিকা নিয়ে এসেছি যা আপনার কাজে লাগবে।

১. একের মধ্যে দুই, সেকেন্ড স্পেস

একটি শাওমি স্মার্টফোনে আপনি চাইলে আলাদা আরেকটি একাউন্ট খুলে তাতে অন্য কাউকে এক্সেস দিতে পারেন। তখন তাতে করে সেই একাউন্ট ব্যবহারকারী তার নিজের মত অ্যাপ ব্যবহার করতে পারবেন, অনেকটা যেন দুটি আলাদা স্মার্টফোন। বাসায় বাচ্চাদের হাতে যদি মাঝে মাঝে ফোন দিতে হয়, তখন এই সেকেন্ড স্পেস ফিচার কাজে আসতে পারে। কারণ, এতে আপনার মূল একাউন্টের সেটিংস ও কনটেন্ট সুরক্ষিত থাকবে। মনে রাখা ভাল, সেকেন্ড স্পেস সিস্টেমে কিছু কিছু অ্যাপ সেটের কিছু পারমিশন পুরোপুরি ব্যবহার করতে সমস্যায় পড়ে। ফোনের সেটিংস মেন্যু থেকে সেকেন্ড স্পেস চালু করা যাবে।

২. ডুয়াল অ্যাপ

ফেসবুক, মেসেঞ্জার প্রভৃতি সেবায় সহজে একাধিক একাউন্ট ব্যবহার করতে চাইলে ডুয়াল অ্যাপ ফিচারটি ব্যবহার করতে পারেন। এটি আপনার ফোনে ইনস্টল করা বেশিরভাগ অ্যাপের সেকেন্ড ভার্সন তৈরি করে দিতে পারে। ফলে আপনার ফোনে অন্য কেউ যদি ফেসবুক চালাতে চায়, তাহলে তাকে আপনার ফেসবুক অ্যাপের একটি ক্লোন তৈরি করে দিয়ে সেই ক্লোনে এক্সেস দিতে পারেন। এতে করে আপনার মূল ফেসবুক অ্যাপ থেকে লগআউট না করেই ক্লোনকৃত অ্যাপে অন্যজনকে এক্সেস দিলে সে সেই ডুয়াল ভার্সন ফেসবুক অ্যাপটি ব্যবহার করতে পারবে। ফলে একটি ডিভাইসে দুটি ফেসবুক অ্যাপ চলবে, যেভাবে অন্যান্য এন্ড্রয়েড ফোনে সাধারণত ব্যবহার করা যায়না। ফোনের সেটিংস মেন্যু থেকে ডুয়াল অ্যাপ ফিচারটি উপভোগ করা যাবে।

৩. ওয়ান হ্যান্ডেড মুড

বড় স্ক্রিনের ফোনে অনেক সময় এক হাতে ধরে থাকলে স্ক্রিনের কোণার দিকে সেই হাতের আঙুল পৌঁছায় না। এক্ষেত্রে ওয়ান হ্যান্ডেড মুড চালু করলে আপনি ফোনের স্ক্রিনের আকার ভার্চুয়ালি কমিয়ে আনতে পারেন। তখন এক হাতে নিয়েই ফোনের সকল অপশন ব্যবহার করা যাবে। ওয়ান হ্যান্ডেড মুড ব্যবহারের জন্য শাওমি ফোনের হোম বাটনের উপর আঙুল রেখে স্পর্শ থাকা অবস্থায় এক দিক থেকে আরেক দিকে সোয়াইপ করুন। তখন ওয়ান হ্যান্ডেড মুড চালু করে স্ক্রিনের সাইজ ভার্চুয়ালি কমিয়ে আনার অপশন আসবে। যেদিকে এই সোয়াইপ করবেন, সেদিকেই ওয়ান হ্যান্ডেড মুড চালু হবে।